দেশ বিদেশের খবর

সপ্তাহ জুড়ে দেশ বিদেশ

চলে গেলেন মেয়ন আনিসুল হক

অবশেষে বিদায় নিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হক। বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার রাতে চিকিৎসকেরা তাঁর কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাসযন্ত্র (ভেনটিলেশন যন্ত্র) খুলে নেন। এরপর তাঁকে মৃত ঘোষণা করা হয়। উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই ব্যক্তিগত সফরে সপরিবার যুক্তরাজ্যে যান মেয়র আনিসুল হক। অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ১৩ আগস্ট তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তাঁর শরীরে মস্তিষ্কের প্রদাহজনিত রোগ ‘সেরিব্রাল ভাস্কুলাইটিস’ শনাক্ত করেন চিকিৎসকেরা। এরপর তাঁকে দীর্ঘদিন আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। একপর্যায়ে মেয়রের শারীরিক পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ায় তাঁর কৃত্রিম শ্বাসযন্ত্র খুলে নেওয়া হয়। কিন্তু মঙ্গলবার মেয়রের পরিবারের একজন সদস্য বলেন, রক্তে সংক্রমণ ধরা পড়ায় তাঁকে আবার আইসিইউতে নেওয়া হয়। বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার রাতে মেয়রকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা। মৃত্যুর সময় তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলে রেখে গেছেন।

টয়েক কেলেঙ্কারির ভুক্তভোগীদের পক্ষে আদালতের রায়

ইংরেজি দক্ষতা যাচাই পরীক্ষা ‘টেস্ট অব ইংলিশ ফর ইন্টারন্যাশনাল কমিউনিকেশনস’ বা টয়েক কেলেঙ্কারির ভুক্তভোগীদের যুক্তরাজ্যে থেকেই আইনের আশ্রয় নেওয়ার সুযোগ দিয়েছেন দেশটির আদালত। গত মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের কোর্ট অব আপিল রায় দিয়েছেন, টয়েক কেলেঙ্কারির ভুক্তভোগীরা স্বরাষ্ট্র বিভাগের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে থাকা অবস্থায় আদালতের আশ্রয় চাইতে পারবেন। আইনি আশ্রয়ের সুযোগ না দিয়ে তাঁদের বিতাড়ন করা যাবে না। এ রায়ের ফলে টয়েক কেলেঙ্কারির ভুক্তভোগী হাজার হাজার বিদেশি শিক্ষার্থী উপকৃত হবেন। বিশেষ করে ভুক্তভোগীদের যাঁরা এখনো যুক্তরাজ্যে অবস্থান করছেন, তাঁরা নতুন করে আদালতের আশ্রয় নেওয়ার সুযোগ পাবেন। ২০১৪ সাল থেকে টয়েক সনদধারী বিদেশি শিক্ষার্থীদের কোনো প্রকার আইনি আশ্রয়ের সুযোগ না দিয়ে গণহারে বিতাড়ন করে আসছে যুক্তরাজ্য।

সভাপতি হচ্ছেন রাহুল গান্ধী

রাহুল গান্ধীই কংগ্রেসের সভাপতি হচ্ছেন। গত সোমবার ছিল দলের সভাপতি পদে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। তিনি ছাড়া আর কেউ প্রার্থী না হওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন রাহুল। পাঁচ বছর ধরে কংগ্রেসের ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে ছিলেন রাহুল গান্ধী। দিল্লির আকবর রোডে দলীয় কার্যালয়ে গতকাল তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর আগে রাহুলকে দলের সভাপতি করতে কংগ্রেসের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের পক্ষ থেকে মোট ৮৯টি প্রস্তাব আসে। উল্লেখ্য, ১৯৯৮ সাল থেকে ১৯ বছর কংগ্রেসকে নেতৃত্ব দিয়েছেন রাহুলের মা সোনিয়া গান্ধী।