স্বাস্থ্য এবং জীবন

ঘরেই হোক রোগের প্রতিকার

টনিকের মাধ্যমে বিস্তারিত জেনে নিন।

ব্যাক পেইন বা মেরুদণ্ডে ব্যথা

  • ঠাণ্ডা ও গরম পানির সেঁক দিন। ২০ মিনিট অন্তর অন্তর ঠাণ্ডা ও গরম পানির সেঁক পরিবর্তন করে ব্যবহার করুন।
  • ঘুমানোর জন্য ম্যাট্রেসটি যেন খুব শক্ত কিংবা একেবারেই নরম না হয়। শোবার সময় মেরুদণ্ড যেন সোজা থাকে।

মাথাব্যথা

  • শুয়ে পড়ে ব্যথায় আক্রান্ত স্থানে ঠাণ্ডা পানির প্যাক প্রয়োগ করুন।
  • লবঙ্গ, মধু ও রসুন মিশুয়ে সে পানীয় পান করুন।
  • আঙ্গুল দিয়ে কপালের দুপাশ এবং মাথায় টিপলে তা ব্যথা উপশমে কাজে দেয়।

নাসারন্ধ্র বন্ধ

  • বাষ্প উড়তে থাকা সময় পর্যন্ত পানি গরম করে পাত্রের চারপাশে কাপড় দিয়ে সেই বাষ্প নাক দিয়ে গ্রহণ করা। এতে একটু মেন্থল মিশিয়ে নিলে ভালো উপকার পাওয়া যায়।
  • ২ চামচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার, মধু ও পানি মিশিয়ে সে মিশ্রণ পান করুন। পান করার আগে মিনিট তিনেক দাঁড়িয়ে থাকুন।

চর্মরোগ

একজিমা, অ্যালার্জি এর মত নানা ধরণের চর্মরোগের ক্ষেত্রে -

  • ৫০০ গ্রাম ওটসকে ১ লিটার পানিতে সিদ্ধ করে ঠাণ্ডা করে নিন। এবার কাপড় চেপে আক্রান্ত স্থানে প্রয়োগ করুন।
  • আক্রান্ত স্থানে টি ট্রি অয়েল প্রয়োগ করুন।

মাইগ্রেন

  • এক কাপ স্ট্রং ব্ল্যাক কফি চিনি দিয়ে খেয়েই দেখুন না।
  • অন্ধকার ও নিরিবিলি ঘরে অবস্থান করুন। গরম এবং ঠাণ্ডা পানির সেঁক বদলে বদলে প্রয়োগ করুন।
  • প্রতিদিন ১০০ গ্রাম অ্যালমন্ড ব্যথা থেকে রক্ষা করতে পারে।

কন্সটিপেশন বা কোষ্ঠকাঠিন্য

  • খালি পেটে সকালে উঠে কমলার জুস পান করুন।
  • চামড়া ছাড়া আপেল আপনার পরিপাক প্রক্রিয়াকে ভালো করবে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করবে।

বুকজ্বালা, পেটব্যথা ও পরিপাকে সমস্যা

  • লেবু দেয়া এক বাটি চিকেন সুপ হতে পারে পেট ও পাকস্থলীর জন্য উপকারি।
  • ব্যথায় আক্রান্ত স্থানে গরম সেঁক প্রয়োগ করুন।
  • বেকিং সোডার সাথে লেবুর রস মিশিয়ে পানিতে মিশিয়ে ধীরে ধীরে পান করুন।

ঠাণ্ডা, সর্দি-কফ

  • ব্রেকফাস্টের সাথে প্রতিদিন এক গ্লাস কমলার শরবত হতে পারে ঠাণ্ডা ফ্লু থেকে বাঁচার উপায়।
  • গরম স্যুপ এ থাকা অ্যান্টিসেপ্টিক ও প্রদাহ হ্রাসকারী গুনাগুণ ঠাণ্ডায় ও গলা ব্যথায় উপশমের কাজ করে।

ব্রণ

  • পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে ৩-৫ মিনিট গরম করুন। এই মিশ্রণটি দিনে দুইবার পান করুন।
  • মধু এবং দারুচিনি মিশিয়ে ফেস মাস্ক তৈরি করে ব্যবহার করুন।
  • পানির মধ্যে ভিনেগার মিশিয়ে তুলা ভিজিয়ে আক্রান্ত স্থানে প্রয়োগ করুন।

চুল পড়া

  • অ্যালোভেরা থেকে নির্যাস সংগ্রহ করে পানিতে মিশিয়ে মাথায় দিয়ে ১০ মিনিট রেখে দিন।
  • গাজরের রস ও নারিকেলের দুধ মিশিয়ে মাথায় দিলে তা চুলের গোড়া শক্ত করে।
  • পেঁয়াজের রস চুলের গোড়া শক্ত করে। পেঁয়াজের রস দিয়ে ২০ মিনিট পর লেবুর রস দিয়ে পরে ধুয়ে ফেলুন।

স্বাস্থ্য বিষয়ক আরও পরামর্শ পেতে ভিজিট করুন www.mytonic.com

www.mytonic.com