স্বাস্থ্য এবং জীবন

প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় চাই এই ৫ টি মেগা ফুড!

স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়াটা সবসময় সহজ হয় না এবং আমরা প্রায়ই বেশ কিছু মেগা ফুড মিস করি যা থাকা উচিত আমাদের প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায়। অনেক খাবারেই চর্বি, ক্যালরি এবং চিনির পরিমাণ প্রচুর, কিন্তু আপনার খাদ্যের নিয়মিত অংশ হিসাবে সেগুলো থাকেই কারণ এগুলো খেতে সুস্বাদু। এখনই সঠিক খাবার বেছে খেলে, ভবিষ্যতে সমস্যা প্রতিরোধ করতে সাহায্য করবে এবং আপনাকে সর্বাধিক পুষ্টি পেতে সহায়তা করার জন্য আমরা আজ এখানে। তাই আজই আপনার পছন্দের স্বাস্থ্য চ্যানেল টনিকে সাবস্ক্রাইব করুন এবং স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস গড়ে তুলুন।  

লেবু:  ভিটামিন সি হল প্রকৃতিতে পাওয়া সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি আপনার কোষগুলিকে সুস্থ ও ত্বককে উজ্জ্বল রাখে। সাইট্রিক এসিড, বিউফ্লেভোনাইয়েড, ভিটামিন সি, ক্যালসিয়াম, পেটটিন এবং লিমোনিন আপনার ইমিউন সিস্টেমকে উন্নত করে এবং ইনফেকশন সংক্রমণ রোধে চমৎকার কাজ করে।

অ্যাপল সাইডার ভিনেগার: অ্যাপল সাইডার ভিনেগার ইনসুলিন সংবেদনশীলতা উন্নতিতে এবং খাবারের পরে রক্তে শর্করার প্রতিক্রিয়া কমাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এর আরো অনেক গুণাবলী আছে, যার কিছু বিজ্ঞান দ্বারা সমর্থিত। এতে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে ওজন হ্রাস, রক্তের নিম্ন শর্করার মাত্রা বজায় রাখা এবং ডায়াবেটিসের উন্নত নিয়ন্ত্রণ ।

কাঠ বাদাম: কোষ্ঠকাঠিন্য, কাশি, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা এবং ত্বকের রোগ থেকে ত্রাণ পেতে সহায়তা করতে পারে কাঠ বাদাম। আপনার যা করতে হবে তা হলো -দৈনন্দিন ব্রেকফাস্টে ৭-৮টি বাদাম খাবার অভ্যাস গড়ে তোলা। তবে অ্যালার্জি সম্পর্কে সতর্ক থাকুন এবং ডাক্তার চ্যাট বা টনিক ডাক্তারের সংস্পর্শে থাকুন।

দই: ক্যালসিয়াম, প্রোটিন এবং প্রোবাইওটিক্সের একটি চমৎকার উৎস হলো দই। দই নিয়মিত গ্রহণের সাথে ভাল ইমিউন সিস্টেম ফাংশন, ওজন ব্যবস্থাপনা এবং অভ্যন্তরীণ প্রদাহ কমানোর সাথে সরাসরি সংযুক্ত।

পালং শাক: নিয়মিত পালং শাক খাওয়া আপনাকে  নির্দিষ্ট কিছু ভিটামিন ও খনিজ পদার্থের যোগান দিবে। এসব ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ ডায়াবেটিস, হাড়ের ক্ষয়, ক্যান্সার, কিডনি পাথর, হার্ট অ্যাটাক এবং স্ট্রোক সহ গুরুতর স্বাস্থ্যের অবস্থার প্রতিরোধ করতে পারে। 

আমরা জানি আপনি এক দিনেই একটা নিখুঁত খাদ্য পরিকল্পনা শুরু করতে পারবেন না, তাই ধৈর্য্য ধরুন, টনিক অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করুন এবং আপনাকে সবসময় সাহায্য করার জন্য টনিকে সাবস্ক্রাইব করুন।

এমন আরো স্বাস্থ্যবার্তার জন্য ভিজিট করুনঃ www.mytonic.com

www.mytonic.com