ভ্রমন গল্প

সাকাহাফং পর্বত

সাকাহাফং পর্বত মোদক তুয়াং বা মদক তং নামেও পরিচিত। স্থানীয় অধিবাসীরা একে বর্ডার হুম নামে ডাকে। ইউএস টপোগ্রাফি ম্যাপ, রাশিয়ান টপোগ্রাফি ম্যাপ, গুগল ম্যাপ, গুগল আর্থসহ বিভিন্ন অভিযাত্রীদের নেওয়া জিপিএস রিডিংয়ের মাধ্যমে জানা গেছে এখন সাকাহাফং- ই বাংলাদেশের অন্যতম সর্বোচ্চ পর্বত শৃঙ্গ।

সাকাহাফং এর চূড়ায় আপনাকে ট্র্যাকিং করে পৌঁছাতে হবে। থানচি বাজার থেকেই আপনার যাত্রা শুরু হবে। পাহাড় ছাড়া অন্য কোনো পথ নেই এখানে। কেবল অতিক্রম করতে হবে দানবের মত এক এক পাহাড়। এমন মনুষ্য বসতিহীন পথে আপনার সঙ্গী হবে পাহাড়ের সাদা মেঘ, হঠাৎ হঠাৎ বৃষ্টি, জুমের ক্ষেত, সবুজ প্রকৃতির ঘ্রাণ আর পাহাড়ি ঝিরির শীতল জল। এই পথেই বোডিং পাড়ায় দেখতে পাবেন ম্রো আদিবাসীদের বসবাস। পাড়ার পাশেই বয়ে চলছে পাথুরে ঝিরি। দলছুট মেঘ আর ঝিরির জলে শীতল করে নিতে পারবেন আপনার শরীর ও মন।

ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে প্রতিদিন বান্দরবানের উদ্দেশ্যে বেশ কয়েকটি পরিবহন সার্ভিসের বাস ছেড়ে যায়। যেমন হানিফ, ইউনিক, শ্যামলী, এস আলম, ডলফিন ইত্যাদি যেকোনো একটি বাসে চড়ে যেতে পারেন বান্দরবান। নন এসি বাসে  ভাড়া ৫৫০ টাকা এবং এসি ৯৫০ টাকা। সপ্তাহের প্রতিদিন বান্দরবান থেকে থানচি পর্যন্ত বাস যায়। অথবা রিজার্ভ জীপে করেও থানচি যেতে পারবেন। থানচি থেকে গাইড নেয়া বাধ্যতামূলক। যাওয়ার পথে থানচি ক্যাম্পে নিজেদের নাম ঠিকানা অন্তর্ভুক্ত করে নিবেন। বান্দরবানের পাড়াগুলোতে রাতে থাকার ব্যবস্থা আছে। ক্যাম্পিং করার ইচ্ছা থাকলে তাঁবু নিয়ে যেতে পারেন।